ডন থ্রি-তে কার জন্য প্রিয়াঙ্কাকে সরালেন পরিচালক!

১৯৭৮ সালে প্রথম ডনের চরিত্রটি নিয়ে দর্শকদের হৃদয় জয় করেন অমিতাভ বচ্চন। সে সূত্র ধরে পরবর্তীতে ২০০৬ সালে ছবিটির রিমেক ‘ডন: দ্যা চেজ বিগিন এগেইন’ তৈরী করা হলে ডনের চরিত্র নতুন ভাবে দর্শকদের সামনে তুলে ধরেন বলিউড বাদশা শাহরুখ খান। ডনের রিমেক এতটাই সফল ছিল যে পরবর্তীতে এই ছবির সিকুয়্যাল নির্মান করা হয় আর বলাই বাহুল্য যে বক্স অফিসে বাজিমাত করার জন্য ২০১১ সালের ডন ২ কেও খুব বেশি অপেক্ষা করতে হয়নি।

‘ডন কা ইন্তেজার তো গ্যারা মুলকো কা পুলিশ কো হ্যায়, লেকিন ডন কো পাকার না মুশকিল হি নেহি, নামুমকিন হ্যায়’ বিগ বি অমিতাভ বচ্চন ‘ডন’ সিনেমার এই ডায়লগটিকে ভক্তরা দারুন ভাবে পছন্দ করেছিল। এর পরে ডনের ভূমিকায় আসলেন শাহরুখ খান ‘ডন ২’ ছবিতে। বলিউডের শাহেনশাহ-এর জুতোয় পা গলিয়ে দিব্যি মানিয়ে নিয়েছিলেন শাহরুখ।

‘ডন ২’ এর নতুন ডন শাহরুখ খান কে সাদরে গ্রহন করেছিলেন বিশ্বব্যপী তার সকল ভক্তরা। বলিউডের সকল ভক্ত ডন এর সিকোয়ালের জন্য যে কতটা উদগ্রীব ছিলেন তা ‘ডন ২’ এর সাফল্য দেখলেই বোঝা যায়। এর পর অপেক্ষা শুরু হয়েছিল তিন নম্বর ডনের জন্য ।

উল্লেখ্য যে, ১৯৭৮ সালের ‘ডন’ ছবিটির সাথে ২০০৬ ‘ডন: দ্যা চেজ বিগিন এগেইন’ ছবিটির কাহিনীর মূল প্রেক্ষপটের মিল থাকলেও ছবিটির শেষ দৃশ্যে নতুন এক নাটকের অবতারনা সৃষ্টি করেন পরিচালক ফারহান আক্তার। ১৯৭৮ সালের ডন ছবিতে যেখানে ডন মারা যাওয়ার পর বিজয় নিজের স্বাভাবিক জীবনে ফিরে গেছিল ঠিক তার অপরদিকে ২০০৬ সালের ‘ডন: দ্যা চেজ বিগিন এগেইন’ এ বিজয় কে সরিয়ে তার ছদ্মবেশে আসল ডনকে বাচিঁয়ে রাখেন পরিচালক ফারহান আক্তার। যা পরবর্তীতে ডন-২ এর প্রতি দর্শকদের পূর্ব ইঙ্গিত দিয়ে রেখেছিল। আর সেই একই ইঙ্গিত দর্শকরা ডন-২ তেও পেয়েছেন অতএব ডন-৩ মুক্তি পাওয়া যে সময়ের ব্যাপার মাত্র এটা বুঝতে বাকী ছিল না কারো।

তবে নানান সময় নানান কথা শোনা গেলেও চূড়ান্তভাবে কিছু জানা ছিলনা কারোরই। এই সিকোয়াল্টিকে ঘিরে সবাই অত্যন্ত কৌতূহল নিয়ে বসে ছিলেন। তাই অবশেষে ‘ডন ৩’ নিয়ে ছবির প্রযোজক রীতেশ সিধওয়ানি মুখ খুলেছেন। তিনি জানিয়েছেন, এই মুহূর্তে তার কিছুটা ব্যস্ততা চলছে ডন-এর তৃতীয় পর্বের গল্প লেখা নিয়ে। খুব দ্রুত ছবির বিশেষ বিষয় নিয়ে মুখ খুলবেন বলে তিনি জানিয়েছেন।

ডন ছবির ফ্রাঞ্চাইজের ডনের পাশাপাশি রোমার চরিত্রটিও সমান গুরুত্বপূর্ণ। সাম্প্রকিত কালে প্রিয়াঙ্কা চোপড়া হলিউডে ব্যস্ত সময় পার করার কারনে ডন ছবির পরবর্তী কিস্তিতে রোমা চরিত্রে তাকে দেখা যাবে কি না এ নিয়ে যথেষ্ট কৌতুহল রয়েছে ভক্ত মহলে। যদিও এ ব্যাপরে কোন তথ্য দিতে এই মুহুর্তে অপারগতা প্রকাশ করেন রীতেশ অর্থাৎ- ‘ডন’ ফ্র্যাঞ্চাইজির অন্যতম চরিত্র ‘রোমা’-এর ভূমিকায় প্রিয়ঙ্কা চোপড়া থাকবেন কি না তা তিনি জানাননি। ছবির কাস্টিং নিয়েও তিনি এই মুহুর্তে কিছু বলতে চান না। তবে পরিচালক হিসেবে ফারহান আখতারকে দেখা যেতে পারে এ ব্যাপারে আভাস পাওয়া গেছে।

বলিপাড়া গুঞ্জন রয়েছে যে এবারে প্রিয়ঙ্কার জায়গায় ছবিতে দেখা যাবে ক্যাটরিনা কাইফকে। ক্যাটরিনা এর আগেও শাহরুখ খানের সঙ্গে জুটি বেধেছেন ২০১২ সালের যাব তাক হ্যায় জান ছবিতে। সেখানে এই জুটির কেমিষ্ট্রি দারুন ভালো লেগেছিল দর্শকদের। কিন্তু রোমার চরিত্রের সাথে নিজেকে কতটা মানিয়ে নিতে পারবেন ক্যাটরিনা তাতো সময়ই বলে দেবে। কিন্তু এই সময়ে ভক্তদের মনে যে প্রশ্নটি সবচেয়ে বেশি ঘুরপাক খাচ্ছে তা হলো ডন ছবির পরবর্তী কিস্তিতে আসলে কে আসতে চলেছেন ডনের সঙ্গী হতে প্রিয়াংকা না ক্যাটরিনা?