আলোচনার মাধ্যমে ভারত ও চিনের মধ্যে বিরোধ মেটানোর জন্য পেন্টাগনের আহ্বান

বর্তমানে ভারত-চিন সম্পর্ক উত্তেজনার শীর্ষে। প্রায় দুই মাস ধরে সিকিম সীমান্তবর্তী ডোকালা-য় মুখোমুখি অবস্থান করছে দু’দেশেরই সেনা। এই মুহূর্তে উত্তেজনা কমাতে কাজ শুরু করলো আমেরিকা। ডোকালা নিয়ে দু’দেশের চরম পরিস্থিতির মধ্যে পেন্টাগনের বার্তা, ভারত-চিন যেন দ্রুত পরিস্থিতি সামাল দেয় ।

পেন্টাগনের মতে, ‘উত্তেজনা কমাতে আলোচনাই একমাত্র রাস্তা , তাই পেশী শক্তি দেখানোর জায়গা থেকে সরে আসতে হবে। দ্বি-পাক্ষিক আলোচনার মাধ্যমেই সমস্যা মিটিয়ে ফেলা উচিত।’ তবে আমেরিকা মতামত জানানোর আগেই ভারত চিনের মধ্যে আলোচনার সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে। দৈনিক আনন্দবাজার পত্রিকার এক প্রতিবেদনে জানা গেছে, ভারতের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভাল এ মাসের শেষে ব্রিকস গোষ্ঠীর সম্মেলনে যোগ দিতে বেজিং যাবেন ।

সেখানে দু’দেশের সম্পর্কের উন্নতি হতে পারে বলে আশা করা যায়। এমন ঘটলে ডোকালা-তেও তার প্রভাব পড়বে। চিনের সরকারি সংবাদ মাধ্যম গ্লোবাল টাইমস- এর বিবৃতিতে জানা গেছে, ডোকা লা সীমান্তের এমন সম্পর্কের কারণে ভারত-চিন বাণিজ্যিক লেনদেনের ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে। দু’দেশের মধ্যে সম্পর্কের ক্ষেত্রে মার্কিন পরামর্শ কাজে আসতে পারে। কূটনৈতিক বিশেষজ্ঞদের অনেকে মনে করছেন যে শান্তিপূর্ণ পরিবেশ তৈরির ক্ষেত্রে এটি ইতিবাচক ভুমিকা রাখতে পারে।